[১] ইরানে রাইসির বিরুদ্ধে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ও অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ‘মানবাধিকার লঙ্ঘনের’ অভিযোগ

Home বিশ্ব [১] ইরানে রাইসির বিরুদ্ধে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ও অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ‘মানবাধিকার লঙ্ঘনের’ অভিযোগ
[১] ইরানে রাইসির বিরুদ্ধে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ও অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ‘মানবাধিকার লঙ্ঘনের’ অভিযোগ

[১] ইরানে রাইসির বিরুদ্ধে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ও অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ‘মানবাধিকার লঙ্ঘনের’ অভিযোগ

সাখাওয়াত হোসেন:[২] মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বিপুল ভেটে জয়ী ইরানের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট রাইসির বিরুদ্ধে জঘন্য অপরাধ সংঘটিত করার অভিযোগ তুলেছে। সংস্থাটির মধ্য প্রাচ্যের ডেপুটি ডিরেক্টর মাইকেল পেইজ এক বিবৃতিতে বলেন, রাইসি দমন ও কারচুপির মাধ্যমে নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন। ইরানের বিচার বিভাগের প্রধান থাকা অবস্থায় ভয়ঙ্কর অপরাধ করেছিলেন তিনি যা অবশ্যই তদন্ত করা উচিত। আল জাজিরা
[৩] যুক্তরাজ্য ভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের প্রধান এগনেস কলামার্ড মানবাধিকার লঙ্ঘনকারী হিসেবে উল্লেখ করেছেন ইব্রাহিম রাইসিকে। তিনি টুইটারে দেওয়া এক পোস্টে লিখেছেন, রাইসি হত্যা, জোরপূর্বক গুম ও নির্যাতন করে মানবাধিকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছিলো। তদন্ত সাপেক্ষে তার বিচার হওয়া উচিত। নির্বাচনে জয়ী হওয়ার কিছুক্ষনের মধ্যেই এমন বিবৃতি দিলো সংস্থাটি।
[৪] অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের ২০১৮ সালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ করে বলা হয়, ইব্রাহিম রাইসি ‘ডেত কমিশনের’ সদস্য ছিলেন। এ কমিশন ১৯৮৮ সালে হাজার হাজার ভিন্নমতাবলম্বী রাজনৈতিকদের মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে। এটি সম্পূর্ণ মানবাধিকার ও আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন।
[৫] ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রী লিয়র হায়াত এক বিবৃতিতে ইরানের নব নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসিকে ‘তেহরানের কসাই’ বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ইরান পারমানবিক কর্মসূচির দিকে এগিয়ে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উচিত এর বিরুদ্ধে কঠোর উদ্বেগ প্রকাশ করা।



WP2Social Auto Publish Powered By : XYZScripts.com
0 Shares
x